test
বাংলা নামের অর্থঅন্যান্যদায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি - কোরআন হাদিসের আলোকে

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি – কোরআন হাদিসের আলোকে

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি, ইসলাম ধর্মে দায়িত্ব একটি গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ বা সম্পর্ক ধারণা বলে মনে হয়। ইসলামিক উক্তি এবং হাদিসে বর্ণিত মহাপুরুষ সহ প্রতিষ্ঠানগুলি মানবিক দায়িত্বের গুরুত্ব বুঝায় দিয়েছেন। নিম্নলিখিত কিছু উক্তি দেখা যাক:

আদম আলাইহিসসালাম ও হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেন, “প্রতিটি কর্মের জন্য মানবকে দায়িত্ব পরিশ্রম করতে হয়।” মানুষ সমাজে বিভিন্ন দায়িত্বসমূহ আছে এবং প্রতিটি ব্যক্তিই নিজের দায়িত্ব পালন করতে বাধ্য রয়েছে।

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি

হযরত আয়েশা (রা.) বলেন, “যে ব্যক্তি একটি কথা পছন্দ না করে তাকে সঠিকভাবে সাহস করে বলতে হয়।” এটি দায়িত্বের একটি মৌলিক সূচক, যার মাধ্যমে ব্যক্তি নিজেকে ব্যক্তিগত ও সামাজিক দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন রাখতে পারে।

আল্লাহ তা’আলা বলেন, “আমি মানুষকে নিয়ে সৃষ্টি করলাম না মাত্র বিনাস করার জন্য, তারা আমার আবেদন করে ওপরের নিয়মগুলি পালন করতে পারে।” (সূরা আধ-ধারিয়াত, ৫৫: ৫৬)

হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেন, “আল্লাহর পথে যে কেউ সকলের জন্য ভালো হতে পারে, সে মানবজাতির বেলায় আসবে এবং তাদের সঙ্গে ভালো আচরণ করবে।” (বুখারী)

হযরত আলী (রাঃ) বলেন, “যদি তুমি পানিতে একটি গামলা দেখ, তাহলে সেটিকে ভালোভাবে শুধু করে দেওয়ার জন্য আরেকটি গামলা দাও।” (আহমাদ)

হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেন, “আপনি যদি একটি কাজ শুরু করেন, তাহলে তা শুভতে শুরু করুন এবং সেটিকে আপনার শুভচিন্তার সাথে সম্পর্কিত রাখুন।” (তিরমিযী)

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি
দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তি

দায়িত্ব নিয়ে উক্তি

দায়িত্ব নিয়ে ইসলামিক উক্তির কিছু উদাহরণ নিচে দেওয়া হলো:

হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেন, “প্রতিটি কর্মের জন্য মানুষকে দায়িত্ব পরিশ্রম করতে হয়।” এটি মানবিক দায়িত্বের উপর ভিত্তি করে বলা হয়েছে।

হযরত আলী (রাঃ) বলেন, “দিয়ে দান করো যাতে তা প্রাপ্য ব্যক্তির হাতে পড়ে, না যাতে অবাঞ্ছিত হাতে।” এটি দায়িত্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত ব্যক্ত করে।

হযরত আইশা (রাঃ) বলেন, “যদি তুমি একটি কথা পছন্দ না করে তাকে সঠিকভাবে সাহস করে বলতে হয়।” এটি দায়িত্বের প্রতি সচেতনতা বোধ করতে সাহায্য করে।

হযরত উমর (রাঃ) বলেন, “যদি তোমার জন্য একটি কাজ করতে হয় এবং তুমি সেটি আদায় করতে পারো, তাহলে কর।” এটি দায়িত্ব নিয়ে আগ্রহ ও দৃঢ় স্বরূপ প্রকাশ করে

হযরত আলী (রাঃ) বলেন, “যদি তোমার দিয়ে কোনও সাহায্য করার বিচার তোমার হাতে থাকে, তবে সেটিকে প্রাপ্য ব্যক্তির হাতে দাও।”

হযরত আইশা (রাঃ) বলেন, “যদি তুমি কোনও কাজ করতে হয় এবং তুমি সেটিকে ভালোভাবে আদায় করতে পারো, তাহলে কর।”

হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) বলেন, “আপনারা সময়ের পরিপূর্তিতে আপনাদের দায়িত্বগুলি পালন করুন।”

হযরত উমর (রাঃ) বলেন, “আপনি যদি কোনও দায়িত্ব দায়িত্ব করতে চান, তাহলে এটি সঠিকভাবে সামর্থ্যপূর্ণ ভাবে আদায় করুন।”

হযরত আবু ধার্যা (রাঃ) বলেন, “একজন মুসলিম কর্তব্য স্বীকার করলে, সে তার দায়িত্বসমূহ পালন করতে বাধ্য হয়।”

 

শেষ কথা 

আল্লাহর আদেশে দায়িত্ব একটি গুরুত্বপূর্ণ মানবিক দায়িত্ব হিসাবে বিবেচিত হয়েছে। মুসলিম হওয়ার সময় আমাদের উপর অনেকগুলি দায়িত্ব বহন করা হয়েছে, যেমন আল্লাহকে একমাত্র আরাধনা করা, নেবী মুহাম্মদ (সাঃ) একটি নবী মানা, কুরআন পড়া ও বুককেতাব পালন করা, পঞ্চ পিলার ইসলাম পালন করা, সৎমর্যাদা ও সত্‌শিলতা মেরে চলা, কলমের দ্বারা শিক্ষা গ্রহণ করা, মানবিক সমাজ উন্নতির অংশ হতে, দায়িত্বপূর্ণ কর্ম ও নৈতিকতার পালন করা।

আল্লাহ আমাদেরকে নিজের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে প্রেরণ করেছেন এবং ইসলামিক উক্তি আমাদেরকে এই দায়িত্বগুলির প্রতি সচেতনতা ও প্রতিশ্রুতি দেয়।

উক্তি পড়ুন
আরও পড়ুন